মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড তথ্যসমূহ

অসহায় ও দরিদ্রদের জন্য সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা: 

  • বাংলাদেশ সরকার অসহায় ও দরিদ্র জনসাধারণের জন্য সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান করছে।
  • দেওয়ানি, ফৌজদারি ও পারিবারিক মামলায় এই সহায়তা দেয়া হয়।
  • নারী, পুরষ ও শিশু কেউ যদি টাকার অভাবে মামলা করতে না পারেন অথবা বিনা বিচারে কারাগারে আটক থাকেন,

তাহলে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা পাবেন।

 

   সব ধরনের ফৌজদারী ও দেওয়ানী মামলায় আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়। যেমন -

 

ফৌজদারী

ফৌজদারী

দেওয়ানী

চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই

অবৈধ অস্ত্র সংক্রান্ত অপরাধ

সমত্মানের অভিভাকত্ব

স্ত্রীর বিনা অনুমতিতে স্বামীর বিয়ে

মার-পিট বা যে কোন শারীরীক আঘাত

ভরণপোষন ও দেনমোহর আদায়

শারীরিক নির্যাতন

হত্যা

বিবহি বিচ্ছেদ

যৌতুক দাবী, যৌতুকের জন্য নির্যাতন

আত্ন হত্যার প্ররোচনা

সম্পত্তির পূনরম্নদ্ধার

এসিড নিক্ষেপ

প্রতারণা, জালিয়াতি

দলিল বাতিল

পাচার

মাদক সংক্রামত্ম অপরাধ

স্থায়ী  নিষেধাজ্ঞা

অপহরণ

পর্ণগ্রাফী

সম্পত্তি বন্টন বা বাটোয়ারা

ধর্ষণ

মানহানি

ঘোষনা মূলক মামলা

আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কতৃক আটক বা গ্রেফতার

 

চুক্তি সংক্রামত্ম মামলা

 

ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির আইনগত দিক:

  • ইউনিয়ন কমিটি আইনগত সহায়তা প্রদান আইন ২০০০ অনুযায়ী গঠিত হবে।
  • এটি ২০০০ সনের ৬নং আইন (২৬ জানুয়ারী,২০০০)
  • আর্থিকভাবে অসচ্ছল, সহায়-সম্বলহীন এবং নানাবিধ আর্থ-সামাজিক কারণে বিচার প্রাপ্তিতে অসমর্থ বিচারপ্রার্থী জনগণকে আইনগত সহায়তা প্রদানকল্পে এই আইন প্রণীত হয়েছে।
  • আইনগত সহায়তা প্রদান নীতিমালা ২০০১, (আইনগত সহায়তা প্রদান আইন ২০০০ এর ধারা ৭(ক) এর বিধান মোতাবেক প্রনয়ন করা হয়েছে, এই নীতিমালায় আইনগত সহায়তা প্রাপকের যোগ্যতার কথা বলা হয়েছে)।
  • আইনগত সহায়তা প্রদান প্রবিধানমালা ২০০১ এটি আইনগত সহায়তা প্রদান আইন ২০০০ এর ধারা ২৪ এ প্রদত্ত ক্ষমতা বলে প্রনয়ন করা হয়েছে (এই আইনে আইন সহায়তা প্রদানের আবেদন কিভাবে করতে হবে, আইনজীবি কি ভাবে মনোনীত হবে, আইনজীবির ফি কি হবে এবং জেলা কমিটির ব্যায় কিভাবে নির্বাহ সে বিষয়ে বলা আছে।
  • জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা (ইউনিয়ন কমিটি গঠন, দায়িত্ব, কার্যাবলী ইত্যাদি) প্রবিধানমালা ২০০১ প্রণীত হয়েছে ৯ জানুয়ারী ২০১১ খ্রিষ্টাব্দ। এই প্রবিধানমালা আইনগত সহায়তা প্রদান আইন ২০০০ এর ধারা ১২ এর সহিত পঠিতব্য ধারা ২৪ এ প্রদত্ত ক্ষমতা বলে প্রনয়ন করা হয়েছে।  
  • প্রবিধানমালা ২০১১ অনুযায়ী ইউনিয়ন আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির গঠিত হবে।
  • বোর্ড, সংস্থা বা জেলা কমিটির কর্তৃক অর্পিত অন্যান্য দায়িত্ব পালন করা।

সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রাপ্তির যোগ্যতাঃ

  • কর্মক্ষম নন, আংশিক কর্মক্ষম, কর্মহীন বা বার্ষিক ১৫০০০০ ( এক লÿ পঞ্চাশ হাজার ) টাকার উর্ধে আয় করতে অক্ষম এমন মুক্তিযোদ্ধা;
  • বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন এমন কোন ব্যাক্তি;
  • ভিজিডি কার্ডধারী দুঃস্থ মাতা;
  • পাচারের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত নারী বা শিশু;
  • দুর্বৃত্ত দ্বারা এসিডদগ্ধ নারী বা শিশু;
  • আদর্শ গ্রামে গৃহ বা ভূমি বরাদ্দ প্রাপ্ত ব্যাক্তি;
  • অসচ্ছল বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা এবং দুঃস্থ মহিলা;
  • উপার্জনে অক্ষম এবং সহায় সম্বলহীন প্রতিবন্ধী;
  • আর্থিক অসচ্ছলতার দরম্নন আদালতে অধিকার প্রতিষ্ঠা বা আত্মপক্ষ সমর্থন করতে অসমর্থ ব্যক্তি;
  • বিনা বিচারে আটক এমন ব্যক্তি যিনি আত্মপক্ষ সমর্থন করার যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহণে আর্থিকভাবে অসচ্ছল;
  • আদালত কতৃক আর্থিকভাবে অসহায় বা অসচ্ছল বলে বিবেচিত ব্যাক্তি;
  • জেল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আর্থিকভাবে অসহায় বা অসচ্ছল বলে সুপারিশকৃত বা বিবেচিত ব্যাক্তি;
  • আইনগত সহায়তা প্রদান আইন-২০০০ এর উদ্দেশ্য পূরণকল্পে সংস্থা কর্তৃক সময় সময় চিহ্নিত আর্থিকভাবে অসচ্ছল, সহায় সম্বলহীন, নানাবিধ আর্থ-সামাজিক এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যাক্তি যিনি আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে স্বীয় অধিকার প্রতিষ্ঠার মামলা পরিচালনায় অসমর্থ।
  • অসচ্ছল বা আর্থিকভাবে অসচ্ছল ব্যক্তি বলতে এমন ব্যক্তিদের বুঝাবে যাদের বার্ষিক গড় আয় ১০০০০০ ( এক লÿ) টাকার বেশী নয়।

 

কোথায় আবেদন ফরম পাবেন-

  • যশোর  জেলা লিগ্যাল এইড অফিস
  • কারাগার কর্তৃপক্ষ
  • উপজেলা চেয়ারম্যান/ ইউএনও এর কার্যালয়
  • ইউপি চেয়ারম্যান/ ইউপি সচিব এর কার্যালয় থেকে পেতে পারেন।

কখন এবং কোন মামলায় সহায়তা পাবেন?

  • দেওয়ানী, ফৌজদারি, পারিবারিক, জেল আপীলসহ যে কোন মামলায়।
  • মামলা দায়েরের পূর্বে কিংবা চলমান মামলায়।
  • মামলার বাদী, বিবাদী, ফরিয়াদী বা আসামী যে কেউ আইনগত সহায়তা পেতে পারেন।

জেলা লিগ্যাল এইড অফিস প্রদত্ত সেবাসমূহ?

  • আইনী পরামর্শ
  • আইনী তথ্য
  • মামলা দায়ের এবং প্রতিনিধিত্ব, সরকারি লিগ্যাল এইড তহবিল থেকে ব্যয় বহন করা হয়
  • সরকারি খরচে মামলা পরিচালনা এবং মামলা দায়েরের জন্য আইনজীবীর ফি ও মামলা সংক্রান্ত অন্যান্য ব্যয় বহন করা হয়

লিগ্যাল এইড প্রার্থীদের জন্য সুবিধাদি :

  • আইনগত সহায়তা প্রার্থীদের জন্য পৃথক সাক্ষাতকার গ্রহণের ব্যবস্থা
  • আইনগত সহায়তা প্রার্থীদের জন্য অপেক্ষমান কক্ষ
  • সুপেয় পানির ব্যবস্থা

লিগ্যাল এইড প্রার্থীর প্রধান করণীয় :

  • জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার ব্যতীত অন্য কারো নিকট থেকে আইনী পরামর্শ গ্রহণ করবেন না।
  • জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার এর পরামর্শ ব্যতিরেকে মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে কোন ব্যক্তিকে অর্থ প্রদান করবেন না।

 

 

সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রাপ্তির আবেদন ফরম ও বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন

  • যশোর জেলা লিগ্যাল এইড অফিস, যশোর জেলা জজ আদালত ভবনের নীচ তলায়
  • বিস্তারিত জানতে হটলাইন নম্বরে যোগাযোগ করুন: ০১৭৩০-৬৯০৩৪০.

 

স্থানীয়ভাবে  আইন সহায়তা পাওয়ার জন্য দ্রুত যোগাযোগ করুন:

আপনার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন পরিষদে কর্মরত সচিব এর সাথে।

 

ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির দ্বি-মাসিক সভায় কি কি বিষয় আলোচনা করা যেতে পারে ?

 

ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির দ্বি-মাসিক সভায় ইউনিয়ন পর্যায়ে লিগ্যাল এইড কমিটির কার্যক্রমের তদারকি ও মূল্যায়ন, জেলা ও উপজেলা লিগ্যাল এইড কমিটির সাথে সমন্বয়, লিগ্যাল এইড সেবা এবং এর কার্যক্রম উন্নয়নে জেলা ও ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির নিকটে বিচারপ্রার্থী জনগণের প্রত্যাশা, আইনগত সহায়তা প্রার্থীদের জেলা কমিটিতে প্রেরণ এবং আইন ও লিগ্যাল এইড বিষয়ে সচেতনতা কর্মসূচির সর্বশেষ অগ্রগতির বিষয়ে আলোচনা করা যেতে পারে।

ছবি


সংযুক্তি